দক্ষিণবঙ্গ প্রথম পাতা

সোনভদ্রে নির্বিচারে ১০ জন দলিতকে হত্যার প্রতিবাদে আন্দোলনে নামলেন আদিবাসীরা।

নিজস্ব প্রতিনিধি : রাজ্যে জুড়ে সোনভদ্রে হত্যায় প্রতিবাদের ঢেউ উঠল আদিবাসী সংগঠনে৷ সোমবার সকাল থেকে বীরভূমের সিউড়িতে আদিবাসী উন্নয়ন গাঁওতা মোট পাঁচ দফা দাবিতে সিউড়ি, মহম্মদবাজার এলাকায় রাস্তা অবরোধ করেন সংগঠনের সদস্যরা৷ তির-ধনুক, ধামসা-মাদল সহ বিভিন্ন পোস্টার হাতে নিয়ে প্রতিবাদে সরব হন আধিবাসী মহল৷ এছাড়াও তাঁরা নিজেদের ৫ দফা দাবিতে একাধিক স্লোগান তুলতে থাকে পথের মাঝে৷ স্লোগান গুলি হল, ১ নং, সোনভদ্রে ১০ জন আদিবাসী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দোষীদের দ্রুত, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে৷ দ্বিতীয়ত, আদিবাসীদের জমি-জঙ্গল অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে৷ তৃতীয়ত, দেশজুড়ে আদিবাসীদের উপর অত্যাচার অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে৷ চতুর্থত, জঙ্গল কেটে কয়লা নয়, আদিবাসী উচ্ছেদ করে কয়লা নয়৷

আদিবাসী উন্নয়ন গাঁওতার সম্পাদক রবীন সোরেনের কথায়, ‘আদিবাসীদের উপর দেশজুড়েই অত্যাচার চলছে৷ এনিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছি৷ এসব বন্ধ না হলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাব৷’ বীরভূমের মহম্মদবাজারেই দেউচা-পাঁচামি কয়লা ব্লক৷ যেখান থেকে কয়লা উত্তোলন নিয়ে ইতিমধ্যে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত কম হয়নি৷ মুখ্যমন্ত্রী নিজেও বারবার দেউচা-পাঁচামির জট কাটিয়ে দ্রুত কয়লা উত্তোলনের ব্যবস্থা করার আবেদন জানিয়েছেন কেন্দ্রের কাছে৷ এই পরিস্থিতিতে মহম্মদবাজারের আদিবাসী সম্প্রদায়ের এই বিক্ষোভে সরাসরি দেউচা-পাঁচামির নাম উল্লেখ না থাকলেও, তাঁদের ৫ দফা দাবির মধ্যে কয়লা প্রসঙ্গ আছে৷ তাই আদিবাসী মহল যদি আন্দোলনের পথে নামেন তাহলে বলা বাকি রাখে না যে, নানা সমস্যায় পড়তে চলেছে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার।

 

Spread the love