aamar sakal: Expert committee issues letter to Tala Bridge, recommending demolition
কলকাতা জেলা প্রথম পাতা রাজ্যের খবর

আমার সকাল: টালা ব্রিজের অবস্থা খারাপ, ভেঙে ফেলার সুপারিশ দিয়ে নবান্নে চিঠি দিল বিশেষজ্ঞ কমিটি

নিজস্ব প্রতিনিধি: টালা ব্রিজ নিয়ে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন শহরবাসী। পুজোর দিনগুলোতেও মেলেনি রেহাই। তবে পুজো কাটতেই ফের তৎপর প্রশাসন। টালা ব্রিজ নিয়ে আজ নবান্নে মুখ্যসচিবের কাছে চূড়ান্ত রিপোর্ট জমা দিলেন ব্রিজ বিশেষজ্ঞ ভি কে রায়না। আগামী শনিবার ব্রিজ নিয়ে বৈঠকে বসবেন মুখ্যমন্ত্রী। উপস্থিত থাকবে সব পক্ষই। ব্রিজ থাকবে নাকি ভেঙে ফেলা হবে তারই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সেই বৈঠকেই।  তবে পঞ্চমীর দিন টালা ব্রিজ পরিদর্শন করেছিলেন ব্রিজ বিশেষজ্ঞ ভি কে রায়না। তারপরেই মৌখিকভাবে একটি রিপোর্টও জমা দিয়েছিলেন পূর্ত দফতরকে।

আরো পড়ুন:  সরকারি দফতরে প্লাস্টিক ব্যবহারের জন্য জেলাশাসক নিজেই নিজেকে জরিমানা করল

এবার লিখিত আকারে রিপোর্ট জমা পড়লো নবান্নে। সূত্রের খবর, রায়নার রিপোর্টেও টালা ব্রিজের বর্তমান অবস্থা বিপজ্জনক বলা হয়েছে। ব্রিজটি সম্পূর্ণরূপে ভেঙে ফেলে নতুন করে ব্রিজ তৈরির সুপারিশ রয়েছে রিপোর্টে। বুধবার নবান্নে মুখ‍্য সচিবের নেতৃত্বে বৈঠকে রিপোর্ট নিয়ে আলোচনাও হয়েছে। রায়নার রিপোর্টের বিষয়ে মুখ‍্যমন্ত্রীকে জানানো হয়েছে।

আরো পড়ুন:  বিরাটিতে প্রোমোটারের বাড়ি লক্ষ্য করে গুলিবৃষ্টি, অভিযোগ তৃণমূল কাউন্সিলরের স্বামীর বিরুদ্ধে

পুজোর আগেই টালা ব্রিজের বেহাল স্বাস্থ্য নিয়ে নবান্নে বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই জানানো হয়, আপাতত বাস চলাচল বন্ধ রাখা হবে টালা ব্রিজে। প্রতিদিন বিভিন্ন রুটের ৬০০-র বেশি বাস চলে টালা ব্রিজ দিয়ে। ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে এই বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ওই বৈঠকে জানানো হয়েছিল পুজোর পরে ফের ব্রিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তবে পুজো শেষ হতেই নবান্নে জমা পড়া রিপোর্টের ভিত্তিতে তৎপর হয়ে উঠেছে রাজ্য প্রশাসন।

ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু হয়েছে এ বিষয়ে। আজ সংশ্লিষ্ট মহলকে নিয়ে বৈঠক করবেন মুখ্যসচিব। এরপর আগামী শনিবারের বৈঠকেই টালা ব্রিজ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে জানা গিয়েছে।মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পর থেকেই অভিযোগ উঠেছে শহরের বিভিন্ন সেতু ও উড়ালপুলের দুরবস্থা নিয়ে। তারপর থেকেই ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা সরকারি সংস্থার তরফে সেতু ও উড়ালপুলগুলি পরীক্ষাও করা হচ্ছে। টালা ব্রিজ স্বাস্থ্যও যে খুব একটা ভালো নয় সেটাও জানা যায় এই পরীক্ষা নিরীক্ষার সময়েই।তারপরেই নবান্নে জমা পড়া রিপোর্টে দেখা গিয়েছে যে টালা ব্রিজ ভেঙে ফেলার জন্য সরকারকে পরামর্শ দিয়েছে সেতু বিশেষজ্ঞ কমিটি।