কলকাতা প্রথম পাতা বিনোদন রাজনৈতিক

আমার সকাল : ‘কামপন্থীদের নতুন যৌনদাসী’, ঊর্মিমালার কছে ক্ষমা চাইলেন বাবুল

নিজস্ব প্রতিনিধি : বাচিকশিল্পী ঊর্মিমালা বসুর একটি ফেসবুক পোষ্ট ঘিরে আপাতত উত্তাল শ্যোশাল মিডিয়ায়। ওই পোস্টের পরিপ্রেক্ষিতে ফেসবুকে ক্ষমা চাইলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

ঘটনার সূত্রপাত তিন-চার দিন আগের থেকে। গত বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ নিয়ে ধুন্ধুমার পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছিল গোটা যাদবপুর চত্বর। তার পক্ষে এবং বিপক্ষে নিজের বক্তব্য রেখেছেন সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে নামী ব্যক্তিত্বরা। তাঁদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন প্রখ্যাত বাচিক শিল্পী ঊর্মিমালা বসু। তিনি যাদবপুরের পড়ুয়াদের সমর্থন করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘বাবুলের উচিত বাচ্চাগুলোর কাছে ক্ষমা চেয়ে নেওয়া।’ আর এই মন্তব্যকেই হাতিয়ার করে তৈরি হয়েছে কুতসিত এক মিম। সেখানে ঊর্মিমালা বসুর ছবির নীচে লেখা হয়েছে, ‘কামপন্থীদের নতুন যৌনদাসী আত্মপ্রকাশ করলেন।’

এরপরই কদর্য আক্রমণের শিকার হতে হল তাঁকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অশ্লীলভাবে ট্রোলড হতে হল উর্মিমালা বসুকে।

এই মিম ছড়িয়ে পড়তেই লিখিতভাবে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন প্রখ্যাত কবি জয় গোস্বামী। বলেছেন, এই অপমান শুধুমাত্র একজন মানুষকে নয়, এক নারীকে করা হয়েছে। মিমের বিরুদ্ধে ফেসবুকে সরব হয়েছেন ঊর্মিমালা বসুও। অন্যদিকে সোশ্যাল মিডিয়ার ওই কুরুচিকর মিমের বিরুদ্ধেই এফআইআর দায়ের করছেন শিল্পী উর্মিমালা বসু।

আরও পড়ুন: আমার সকাল : নিখিলের ঠোঁটে নুসরতের ঠোঁট, বোদরুমের বিয়ের ভিডিও শেয়ার করলেন সাংসদ

উর্মিমালা বসুর প্রতি হওয়া আক্রমণের তীব্র নিন্দা করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। যেই ঘটনার জেরে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন বাবুল নিজে। প্রতিবাদ করে টুইটারে তিনি লিখেছেন, “এই ধরনের আচরণ একেবারেই কাম্য নয়৷ আমি ওনাকে ব্যক্তিগতভাবে চিনি৷ যাদবপুর কাণ্ডে উনি যা বলেছেন তাঁর উত্তর আমি দেব যথা সময়ে৷ কিন্তু এই ধরনের নোংরা মিম একেবারেই সমর্থনযোগ্য নয়।”