কলকাতা প্রথম পাতা

১১ আর ১৬-এর ভোটে তৃণমূল ব্যালটে নয় ইভিএমে জিতেছে, ফেরত দিক! মমতার দাবিকে কটাক্ষ সুজনের

নিজস্ব প্রতিনিধি: ইভিএম বাতিল করে ব্যালট ফেরানোর দাবিতে সোচ্চার ছিল এবার তৃণমূলের ২১ জুলাই। দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, ইভিএম কারচুপি করেই লোকসভা নির্বাচনে জিতেছে বিজেপি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই দাবিকে পাল্টা প্রশ্নে বিঁধলেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। তাঁর প্রশ্ন, ইভিএম কারচুপি হলে ২০১১ ও ২০১৬-র নির্বাচনে কী করে বিপুল জয় পেল তৃণমূল? তার জবাব আগে দিক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সুজন আরও বলেন, “একটা সময়ে উনিই ব্যালটের বদলে ইভিএম চাইতেন। এখন উনিই বিরোধিতা করছেন। একটা সময়ে উনিই সব কিছুতে সিবিআই তদন্ত চাইতেন। এখন উনিই সিবিআই-এর ভয়ে ঠকঠক করে কাঁপছেন।”

লোকসভা ভোটে বাংলা সিপিএম শূন্য। ভোট শতাংশ নিয়েও আলিমুদ্দিনের অবস্থা খুব খারাপ। কিন্তু সিপিএম-কে আক্রমণ করা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহজাত।কারণ,সিপিএমের সাথে লড়াই করেই তিনি আজ বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসেছেন। তাই এই একুশের মঞ্চ থেকেও সিপিএম-কে বিঁধতে ছাড়েননি তিনি। কখনও বলেছেন, চৌত্রিশ বছরে সিপিএম কত কাটমানি নিয়েছে? কখনও সিপিএম কংগ্রেসকে এক আসনে ফেলে বলেছেন, “যে ডালে বসে আছো সেই ডাল কেটো না। তোমার সাইনবোর্ড বিজেপি নিয়ে নিয়েছে। কী করে হয়?” এদিন সুজন বলেন, ইভিএমের গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নাতীত করতে বরাবর দাবি জানিয়ে এসেছে বামেরা। কিন্তু ইভিএম বাতিলের দাবি কখনো তোলেনি তাঁরা। বামেদের দাবি মেনেই ইভিএম-এর সঙ্গে ভিভিপ্যাট যোগ হয়েছে। যার ফলে আরও বেড়েছে স্বচ্ছতা। কিন্তু ইভিএম বাতিলের দাবি কখনো জানায়নি বামপন্থীরা।

 

 

Spread the love