দেশ প্রথম পাতা

৩ এপ্রিল শিলিগুড়ি ও ব্রিগেডে সভা করবেন মোদি

নিজস্ব প্রতিনিধি— উত্তর-দক্ষিণ একই দিনে দুই বঙ্গেই সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শিলিগুড়ি ও ব্রিগেড— মোদির টানে একই দিনে দুই সভাতেই জনজোয়ার হবে, আত্মবিশ্বাসী বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।

৩ এপ্রিল রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী। ব্রিগেডে সভা করবেন তিনি। শনিবার রাজ্য বিজেপির তরফে জানানো হয়েছিল এমনটাই। রবিবার বিজেপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি নেতা মুকুল রায় জানান, ৩ এপ্রিল ব্রিগেড ও শিলিগুড়ি দুই জায়গাতেই সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী। ওইদিন দুপুর ১টায় শিলিগুড়িতে সভা শুরু হবে। এই সভার পর দুপুর ৩টে নাগাদ ব্রিগেডে সভা করবেন তিনি। আত্মবিশ্বাসী মুকুলের দাবি, ব্রিগেডের সমস্ত রেকর্ড ভাঙতে চলেছে প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন সভা।

লোকসভা নির্বাচনের জন্য দেশজুড়ে একাধিক সভা করার পরিকল্পনা নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। সেই সঙ্গে বাংলার ওপর দেওয়া হবে বিশেষ নজর। প্রথম দফায় প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর ক্ষোভ দেখা গিয়েছিল বিজেপির অন্দরমহলেই। এই ক্ষোভ শান্ত করতে এবং বাংলায় প্রচারের ঝড় তুলতে বাংলায় সভা করার বিষয়ে বিশেষ নজর দিচ্ছেন মোদি এবং অমিত শাহ। সেইমতো দক্ষিণবঙ্গে সভার জন্য তিনি বেছে নিয়েছিলেন ঐতিহাসিক ব্রিগেড মাঠকেই। ব্রিগেডে সফলভাবে সভা করা যে কোনও রাজনৈতিক দলের জন্যই চ্যালেঞ্জ।

এদিকে রাজ্য বিজেপির প্রস্তুতির জন্য হাতে রয়েছে মাত্র ৯ দিন। স্বাভাবিকভাবেই তৎপরতা ছিল রাজ্য বিজেপি শিবিরে। যদিও একই দিনে দুই বঙ্গে সভা করার সিদ্ধান্তে চ্যালেঞ্জ বেড়েছে বিজেপির। এক বিজেপি নেতার কথায়, উত্তরবঙ্গের দুটি কেন্দ্রে প্রথম দফাতেই লোকসভা নির্বাচন রয়েছে। ফলে সেখানের কর্মীদের মনোবল বাড়াতে মোদির বার্তার প্রয়োজন ছিল। তাই সেখানে সভা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু একই দিনে দুটি সভা হলে তা সফল হবে তো? মুকুল রায়ের দাবি, মোদি ঝড়েই লোকসমাগম হবে।

সূত্রের খবর, লোকসভা নির্বাচনের আগে পশ্চিমবঙ্গে প্রচারের ঝড় তুলতে চান নরেন্দ্র মোদি। এমনকি আগামীদিনে বাংলায় ২০টি সভা করার পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানা গেছে। ফলে একই দিনে দুটি সভার আয়োজন করা হয়েছে বলেও দাবি গেরুয়া শিবিরের একাংশের।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।