দেশ প্রথম পাতা

হ্যাক করা হয়েছে বিজেপির ওয়েবসাইট, সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখাল কংগ্রেস

নিজস্ব সংবাদদাতা: হ্যাকারদের কবলে এ বার বিজেপির ওয়েবসাইট। মঙ্গলবার সকালে সেটি হ্যাক করা হয় বলে খবর। কে বা কারা এই কাণ্ড ঘটিয়েছে, কোথা থেকে ঘটিয়েছে, তা জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে।হ্যাক হয়েছে বিজেপির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট! এমন খবরে সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর জল্পনা ওঠে। এমনকি কংগ্রেসের তরফেও ওই হ্যাকের খবর জানানো হয়। এখনও পর্যন্ত ওই ওয়েবসাইট পুনরুদ্ধার হয়নি। ওই ওয়েবসাইটে কিছু ক্ষণের মধ্যেই ফিরে আসার আশ্বাস দেওয়া হয় বিজেপি কর্তৃপক্ষের তরফে। তবে পুলওয়ামায় হামলার  পর থেকে ভারত-পাক সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকেছে। তাই পাক হ্যাকাররাই সাইটটি হ্যাক করে থাকতে পারে বলে জল্পনা বিজেপি শিবিরে।হ্যাক হওয়ার বিষয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রথম খবরটি চাউর হয়। কংগ্রেসের টুইটার ম্যানেজার দিব্যা স্পন্দনা টুইট করে জানান, “আপনারা যদি বিজেপির ওয়েবসাইট না দেখে থাকেন তা হলে মিশ করবেন।”

মঙ্গলবার সকালেই বিজেপির www.bjp.org সাইটটি হ্যাক করা হয় বলে দলীয় সূত্রে খবর। চেষ্টা করেও ওয়েবসাইটটি খোলা যায়নি। তার বদলে হোম পেজে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য ফুটে ওঠে। প্রধানমন্ত্রীর একটি ভিডিয়োও বিকৃত করা হয়।বিষয়টি চাউর হতেই তড়িঘড়ি কাজে নামে বিজেপির আইটি সেল। ওয়েবসাইটটি সাময়িক বন্ধ রাখে তারা। শুরু হয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য মুছে ফেলার কাজ। আইটি সেলের তরফে ব্লক করে দেওয়ার পর আর ওয়েবসাইটটিতে ঢুকতে পারেননি কোনও ভিজিটর। তবে সব মিটে গেলে মঙ্গলবারই ফের সাইটটি সক্রিয় হয়ে যাবে বলে বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে।

বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, ওয়েবসাইট হ্যাক করে কাশ্মীর নিয়ে হুমকি দেওয়া হয়েছে। কাশ্মীর নিয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে ভারত সরকার। তা থেকে না সরলে, উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে হ্যাকাররা।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।