Uncategorized

সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধনে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি— মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শনিবার উত্তরবঙ্গে আসছেন। এদিন দুপুরে উত্তরবঙ্গের মানুষের দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষিত সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন করবেন তিনি। আজ বিকালে তিনি বাগডোগরা বিমানবন্দরে নামার পর সোজা সড়কযোগে চলে যাবেন জলপাইগুড়ি। সেখানে রাতে ইন্সপেকশন বাংলোতে থাকবেন। শনিবার দুপুরের মধ্যে তিনি জলপাইগুড়িতে বহু প্রতীক্ষিত সার্কিট বেঞ্চ উদ্বোধন করবেন। শনিবারই জলপাইগুড়ি থেকে সড়কযোগে বাগডোগরায় আসার পর তাঁর ফিরে যাওয়ার কথা কলকাতায়।

এদিকে মুখ্যমন্ত্রী আসবেন বলে যেমন উৎসাহ তৈরি হয়েছে তেমনই সার্কিট বেঞ্চ ঘিরে উদ্দীপনা তৈরি হয়েছে। পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব ইতিমধ্যে জলপাইগুড়িতে গিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রীর সফর ঘিরে। মন্ত্রী গৌতম দেব বলেছেন, তাদের সরকার বহুদিন ধরে সার্কিট বেঞ্চের সব পরিকাঠামো তৈরি করে দিয়েছিলো। কিন্তু কেন্দ্র সরকার চূড়ান্ত অনুমোদনে বাধা প্রয়োগ করছিল। এখন সব জট কেটে যাওয়াতে এর উদ্বোধন হচ্ছে। তাদের সরকার এবং তৃণমূল কংগ্রেস বহু দিন ধরে জলপাইগুড়িতে সার্কিট বেঞ্চের কথা বলে আসছিল। এবারে তা বাস্তবায়িত হতে চলেছে। এটা একটা দারুণ ব্যাপার। তৃণমূলের অন্য নেতারা বলছেন, উত্তরবঙ্গের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি কলকাতা হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চ উত্তরবঙ্গে স্থাপিত হোক। উত্তরবঙ্গে এই সার্কিট বেঞ্চ না থাকায় বিচারপ্রার্থীদের হয়রান হতে হচ্ছিল। তাদের ঘন ঘন বিচারের জন্য কলকাতাতে যেতে হোত। আর সবার পক্ষে কলকাতায় গিয়ে বিচার চাওয়া সম্ভব হোত না। ফলে এবারে সেই সব বিচারপ্রার্থীদের উপকার হবে। যদিও এই সার্কিট বেঞ্চ শুরু করবার জন্য ইতিমধ্যে কৃতিত্ব দাবি করে বসেছে বিজেপি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ি এসে সম্প্রতি সার্কিট বেঞ্চ শুরু করবার জন্য কেন্দ্র সরকারের কৃতিত্ব বলে উল্লেখ করেছেন। তবে যাই হোক না, বহু প্রতীক্ষিত সার্কিট বেঞ্চ শুরু হোক আর সেখানে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হোক এটাই চাইছেন উত্তরবঙ্গের মানুষজন।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।