দেশ প্রথম পাতা

রাফায়েলের নথি চুরি হয়ে গিয়েছে প্রতিরক্ষামন্ত্রক থেকেই, আদালতে জানাল কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিনিধি: গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। সেই রায় পুনর্বিবেচনার জন্য আর্জি জমা পড়েছিল শীর্ষ আদালতে। তারই শুনানি শুরু হল বুধবার।রাফায়েল যুদ্ধবিমান কেনার সরকারি নথি কীভাবে প্রকাশ্যে এল? এই প্রশ্নই সম্প্রতি ঘুরছিল ভারতীয় রাজনীতির অন্দরমহলে। এবার সেই প্রশ্নের জবাব এল কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে।

 বুধবার কেন্দ্রীয় সরকারের অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল। তাঁর দাবি, প্রতিরক্ষামন্ত্রক থেকে চুরি হয়ে গিয়েছে রাফালের গুরুত্বপূর্ণ নথি। আর যা প্রকাশ্যে আসার পর শোরগোল পড়ে গিয়েছে দেশজুড়ে।মূলত রাফায়েল নিয়ে যাঁরা সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধেই পাল্টা আইন ভাঙার অভিযোগ তুলল সরকার। বুধবার সুপ্রিম কোর্টে সরকার দাবি করেছে, রাফায়েল নথি চুরি করা হয়েছিল। যাঁরা কোর্টে আবেদন করেছেন, তাঁরা গোপন নথির ভিত্তিতেই মামলা চালাচ্ছেন। এইভাবে তাঁরা গোপনীয়তা আইন ভঙ্গ করেছেন।

কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে এদিন অ্যাটর্নি জেনারেল  আদালতে বলেন, যে নথিগুলির ভিত্তিতে মামলা চালানো হচ্ছে, সেগুলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকে চুরি গিয়েছিল। মন্ত্রকের প্রাক্তন অথবা বর্তমান কর্মীরাই নিশ্চয় চুরি করেছিল। এরপরে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ প্রশ্ন করেন, চুরির পরে সরকার কী ব্যবস্থা নিয়েছে? কেন্দ্রীয় সরকার জানায়, আমরা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি।সম্প্রতি একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি সংবাদপত্রে রাফায়েল চুক্তি নিয়ে বেশ কয়েকটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। বিরোধীদের অভিযোগ, ওই চুক্তির সময় ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। সরকার বেশি দাম দিয়ে ওই বিমান কিনছে। রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা হ্যালকে বাদ দিয়ে ফরাসি সংস্থা দাসোর অফসেট পার্টনার করা হয়েছে শিল্পপতি অনিল অম্বানির কোম্পানিকে। 

 

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।