কলকাতা জেলা প্রথম পাতা

ময়দানে ঝাঁপাতে চলেছে তৃণমূল!  মঙ্গলবারই ৪২ আসনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারেন মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি: রবিবার বিকেলে দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে বিশেষ সাংবাদিক বৈঠক করে দেশে লোকসভা ভোটের দামামা বাজিয়ে দিয়েছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। সেখানেই কমিশনের তরফে ঘোষণা করা হয় লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট। আর তার পরেই নিজেদের প্রার্থীতালিকা চূড়ান্ত করতে তৎপর শাসক-বিরোধী সব রাজনৈতিক দলই।  লোকসভা নির্বাচনের প্রচারের শুরু থেকেই বিরোধীদের থেকে এক কদম এগিয়ে থাকতে চায় তৃণমূল নেতৃত্ব। তাই নির্বাচন দিন ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পর নিজেদের প্রার্থী তালিকা নিয়ে চূড়ান্ত তৎপরতা তৃণমূল শিবিরে। 

এবারের নির্বাচনে পুরোনো বিশ্বস্ত সেনাপতিদের পাশাপাশি নতুন কিছু মুখ ঠাঁই পেতে চলেছে তৃণমূলের প্রার্থীতালিকায়। কৃষ্ণনগর থেকে প্রার্থী হতে পারেন মহুয়া মৈত্র। মালদা উত্তরে টিকিট পেতে পারেন মৌসম বেনজির নুর। বোলপুরে প্রার্থী হতে পারেন অসিত মাল। সেখানে বাদ যেকে পারেন অনুপম হাজরা। এবারও উত্তর কলকাতা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হতে পারেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। দক্ষিণ কলকাতা থেকে প্রার্থী হতে পারেন সুব্রত বক্সি। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও ডায়মন্ড হারবার থেকেই প্রার্থী হতে পারেন।মঙ্গলবার দুপুরে কালীঘাটের বাড়িতে দলের নির্বাচন কমিটির বৈঠক ডেকেছেন মমতা। কয়েকদিন আগে সুব্রত বক্সী, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, শুভেন্দু অধিকারী-সহ ১২ জন নেতাকে নিয়ে নির্বাচন কমিটি তৈরি করেছিল তৃণমূল। রবিবার ভোটের দিন ঘোষণার পর তৃণমূলের একটি সূত্র দাবি করছিল, মঙ্গলবার কমিটি বৈঠক করে হয়তো বুধবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হবে।

তবে তৃণমূলের বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে,শেষ মুহূর্তে ফের কৌশলের কোনও পরিবর্তন না হলে মঙ্গলবারই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দিতে পারেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।রবিবার বিকেলে লোকসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করে দিয়েছে। বরাবর যেদিন নির্বাচন ঘোষণা হয়, সে দিনই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দেন মমতা। শুধু ২০০৯এর ভোটে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট হওয়ায় সেটা হয়নি।  কিন্তু এ বার  নির্বাচনের লড়াই হবে অন্যরকম।তা ভালোই বুঝতে পারছে সবপক্ষই। তৃণমূলের টার্গেট বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ। তাই এবার খানিকটা সাবধানী মনোভাবই নিচ্ছে তৃণমূল শীর্ষনেতৃত্ব।তৃণমূলের সর্বোচ্চ সূত্রে জানা যাচ্ছে, রবিবার রাতেই মমতা দলের নেতাদের সঙ্গে পৃথক পৃথক ভাবে কথা বলেছেন। রাতে দীর্ঘ আলোচনা করেছেন যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও। ফলে প্রার্থী তালিকা একপ্রকার চূড়ান্তই হয়ে গিয়েছে।

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।