জেলা প্রথম পাতা

ভোট আদায়ের জন্য বিজেপি বোমা-বন্দুক-মিসাইল দেখাচ্ছে: দিল্লির দিকেই নিশানা মমতার 

নিজস্ব প্রতিনিধি:  ” আপনার দুদিন বাদে  ভোট।তাই আপনি এখন বন্দুক দেখাচ্ছেন, মিসাইল দেখাচ্ছেন, বোমা দেখাচ্ছেন।এমনকি জওয়ানদের রক্ত নিয়ে রাজনীতি করছেন।লজ্জা করে না।সত্য কে মিথ্যা আর মিথ্যাকে সত্য দেখানো হচ্ছে।এক এক জনকে একদিনের জন্য বোকা বানানো যায়, কিন্তু চিরদিনের জন্য বোকা বানানো যায় না।” বুধবার দুপুরে হাওড়ার সাঁত্রাগাছি মৌজার আড়ুপাড়ায় এসে  রাজ্যের প্রথম হিন্দি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস অনুষ্ঠানে এসে ভারত-পাকিস্তানের সঙ্গে ঘটে যাওয়া  সাম্প্রতিক ঘটনাবলি প্রসঙ্গে এমনই মন্তব্য করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর এই মন্তব্য মোদীজী ও বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তা বলাই বাহুল্য।এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি বলে দিলেন তাঁরা দেশের পক্ষে, দশের পক্ষে, একতার পক্ষে, জওয়ানদের পক্ষে কিন্তু মোদীর পক্ষে নয়, বিজেপির পক্ষে নয়,  কোনও  কালো তালিকাভুক্ত গর্ভনমেন্টের পক্ষে নয়।

তিনি বলেন, কেউ কিছু বিরোধিতা করলে সে পাকিস্তানি? আর তোমরা হিন্দুস্থানি ?  বিজেপি কর্মীরা সারাদিন গুগুল  সার্চ করছে।কেন ?কার কি ধর্ম ?  মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কোনও সাংবাদিক বিরোধিতা করলে তাঁকে খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে।এ যেন গব্বর সিং।দেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রীকে ভয় পাচ্ছেন।এদিন মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দিলেন ওরা গেলে আমাদের দেশ বাঁচবে।আমাদের এখন নির্বাচন নয়।আমাদের এখন অনেক উন্নয়ন করতে হবে।ওদের এখন নির্বাচন।তাই সত্যকে মিথ্যা ও মিথ্যাকে সত্য বলছে।কারন হিসেবে মুখ্যমন্ত্রীর ইঙ্গিত দু তিনদিনের মধ্যেই লোকসভা নির্বাচন ঘোষণা হয়ে যাবে।তাই এখন বিজেপি বোমা, বন্দুক, মিসাইল দেখিয়ে মানুষের মন ঘুড়িয়ে দিতে চাইছে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের মানুষের জন্য রাজ্য সরকারের বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করলেন।তিনি বলেন,  রাজ্যের প্রায় ন কোটি মানুষের মধ্যে সাড়ে সাত কোটি মানুষকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় করে দিয়েছি।যেখানে তাঁরা বিনা পয়সায়  হাসপাতালে চিকিত্সা করাতে পারবেন।পাশাপাশি যাঁরা পলিটেকনিক পাশ করবে বা ব্যবসার জন্য এরকম পঞ্চাশ হাজার মানুষকে রাজ্য সরকার এক লক্ষ টাকা দেবে।অপরদিকে এদিন মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন , হাওড়ায় অবস্থিত নবান্নের পিছনে তিন একর জায়গা আছে।ওখানে স্বাস্থ্য ভবন হবে ।প্রয়োজনীয় নির্দেশ পাঠানো হয়েছে।

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।