Uncategorized

নির্বাচনের কাজে লাগানো বাসের ভাড়া বৃদ্ধির দাবি নির্বাচন কমিশনের কাছে

নিজস্ব প্রতিনিধি— ভোটে যে বাস প্রয়োজন, তা নিয়ে বাস-মালিকদের সঙ্গে বৈঠক হল সোমবার। লোকসভা নির্বাচনে যাতে যথেষ্ট পরিমাণ বাসের ব্যবস্থা করা যায়, তার প্রস্তুতিতেই বাস মালিক সংগঠনগুলিকে এই বৈঠকে ডাকা হয়। কলকাতা উত্তর এবং কলকাতা দক্ষিণ এলাকায় নির্বাচনের জন্য ২৮৪টি এবং ১২৫টির বেশি বাস লাগবে বলে জানানো হয় বৈঠকে। বাস-মালিক সংগঠনের তরফে বাসভাড়া বৃদ্ধির কথাও বলা হয়েছে। আগে একটি বাস একদিনের জন্য নির্বাচনে নেওয়া হলে ভাড়া দেওয়া হত ১৯১০ টাকা, সেই ভাড়া বাড়িয়ে সাড়ে তিন হাজার টাকা, দূরপাল্লার বাসগুলির ভাড়া বাড়িয়ে ৩৯০০ টাকা এবং মিনিবাসের ভাড়া ১৮৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩ হাজার টাকা করার দাবি জানানো হচ্ছে বলে জানান জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও যে সমস্ত বাসকর্মীরা কাজ করবেন তাঁদের ৩৫০ টাকা করে দিতে হবে এই দাবি জানিয়ে সোমবার রাজ্য নির্বাচন কমিশনার এবং পরিবহণ দফতরে চিঠি দেওয়া হবে বলে জানান তপনবাবু। শুধু তাই নয়, বাসের রিপোর্টিংয়ের সময় ৭৫ শতাংশ টাকা মিটিয়ে দিতে হবে এবং বিল সাবমিট করার ১৫ দিনের মধ্যে বাকি টাকা মিটিয়ে দিতে হবে বলেও দাবি জানানো হবে। আগে যেরকম এক জেলার বাস নির্বাচনের জন্য অন্য জেলায় নিয়ে কাজ করা হত, তা আর করা যাবে না, জেলার বাস জেলাতেই চালাতে হবে বলেও দাবি জানায় বাস মালিক সংগঠনগুলি। কোথায় কত বাস লাগবে, তা নিয়ে জেলায় জেলায় সংগঠনগুলি বৈঠক করবে। বাসভাড়া এবং বাসকর্মীদের মজুরির টাকা রাজ্যের সর্বত্র এক থাকবে বলে জানান তপনবাবু। কলকাতার উত্তর ও দক্ষিণ কেন্দ্রের জন্য যে বাসের প্রয়োজন এদিন বৈঠকের মধ্য দিয়ে সেই তালিকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। বাসমালিক সংগঠনের কর্তাদের হাতে। তাদের দাবি মতো বাসভাড়া বৃদ্ধি এবং ভোটকর্মীদের দৈনিক টাকার পরিমাণ বৃদ্ধি করা হয় সেক্ষেত্রে উপকৃত হবেন বাসমালিক থেকে বাসকর্মী সকলেই।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।