কলকাতা জেলা প্রথম পাতা

দিল্লির আর্শীবাদ সাথে নিয়ে রাজ্যের সরকার টিকিয়ে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী! কেন্দ্র-রাজ্যের আঁতাত নিয়ে ফের সবর সূর্যকান্ত মিশ্র

নিজস্ব প্রতিনিধি: মুখ্যমন্ত্রী বলছেন ৪২-৪২। কিন্তু ডেবরা কর্মীসভায় সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রের বিস্ফোরক মন্তব্য যে রাজ্যে অন্তত ১০টি আসন বিজেপিকে ওয়াকওভার দেবে তৃণমূল কংগ্রেস। তিনি বলেন, তৃণমূল যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে বুক ঠুকে বলতে পারি অন্তত ১০টি আসনে উনি(মুখ্যমন্ত্রী) বিজেপিকে ওয়াকওভার দিয়েছেন।বিজেপি প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত হলে বিষয়টি আরো পরিষ্কার হবে। সূর্যবাবু বলেন, এটা অনেকটা যাত্রাপালায় রাম-রাবণের যুদ্ধের মতো। মঞ্চে একজন আরেকজনকে মারছে কিন্তু যাত্রার শেষে গ্রীণরুমে বসে একই বিড়িতে দুজনে টান মারছে। তলায় তলায় ভাগাভাগির এই সর্ম্পকটি রয়েছে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে। না হলে যে প্রধানমন্ত্রী স্লোগান দিয়েছিলেন” না কাউঙ্গা না খানে দুঙ্গা”। তিনি পাঁচ বছর ধরে চিটফান্ড কেলেঙ্কারি নিয়ে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করলেন না কেন। নারদায় তৃণমূলের অণেক সাংসদকে পর্দায় টাকা নিতে দেখা গেল কিন্তু সংসদের এফিক্স কমিটির চেয়ারম্যান বিজেপির লালকৃষ্ণ আডবানী হওয়া সত্বেও ওই সাংসদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হল না। একেই অভিযোগে বাম আমলে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় সিপিআই বিধায়ক মহ: ইলিয়াসের বিধায়ক পদ খারিজ করে দেওয়ার প্রসঙ্গও তিোলেন তিনি। দুর্নীতি বন্ধের প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছা নিয়েও খোঁচা দেন।ডেবরায় ঘাটাল লোকসভা আসনে সবং,ডেবরা ও পিংলা বিধানসভা এলাকার কর্মীদের নিয়ে এই কর্মীসভায় সূর্যবাবু বলেন, দিল্লির আর্শীবাদ নিয়েই রাজ্যের সরকার টিকিয়ে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী।দিল্লিতে উল্টো পাল্টা বলে রাজ্য সরকারও টলমল হবে। ইদুঁররা পালাতে শুরু করেছে এরপর ধেড়ে ইদুঁরারও পালাবে। ওরা ভয় পেয়েছে। তাই ভয় দেখাচ্ছে। রাজ্যের তৃণমূল সরকারের তীব্র সমালোচনা করে সূর্য মিশ্র বলেন,কোন শিল্প আসা তো দুরের কথা সব রাজ্য ছেড়ে চলে যাচ্ছে।মুখ্যমন্ত্রী পদ না সরলে এরাজ্যে কোন শিল্পই আসবে না। কর্মীদের উদ্দেশ্যে সিপিএম রাজ্য সম্পাদকের বার্তা যারা সাধারণ মানুষ শিক্ষক,অসংগঠিত শ্রমিক যারা তৃণমূল করছেন তাদের কাছে পৌছে যেতে হবে।  

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।