কলকাতা জেলা প্রথম পাতা

ডায়মন্ডহারবারে অভিষেককে চ্যালেঞ্জ জানাতে কংগ্রেসের বাজি হতে পারে সোমেন পুত্র রোহন মিত্র!

নিজস্ব প্রতিনিধি: সম্ভবত আজ বিকেলেই জানা যেতে চলেছে কবে থেকে শুরু হবে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন।তবে জাতীয় রাজনীতিতে যাই হোক না কেন এবারের বাংলার রাজনীতিতে লোকসভা নির্বাচন যে অন্য মাত্রা পেতে চলেছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তৃণমূল,বিজেপি,সিপিএম,কংগ্রেস সব রাজনৈতিক দলই নিজেদের মতো করে ঘর গোছাতে শুরু করেছে।ইতিমধ্যেই সব দলেরই প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত।কেউ কাউকে যে এক ইঞ্চিও জায়গা ছেড়ে দেবে না তা পরিষ্কার হয়েছে শীর্ষনেতাদের গলাতেই। তবে বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে, ডায়মন্ডহারবার আসনে যদি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁড়ান তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী করতে পারে সোমেন পুত্র রোহন মিত্রকে। পাশাপাশি, পুরুলিয়া আসনটি ফরোয়ার্ড ব্লককে ছাড়তে রাজি নয় কংগ্রেস। পুরুলিয়ায় প্রার্থী করা হতে পারে নেপাল মাহাতকে। উত্তর কলকাতায় সাদাব খানকে প্রার্থী করতে পারে কংগ্রেস।  জোট প্রসঙ্গে আসন ভাগাভাগির ফর্মুলা নিয়ে আজ দিল্লি ও কলকাতা, দু জায়গাতেই বৈঠক বসছে কংগ্রেস। আসন ফর্মুলা স্থির হলে তারপরই শিলমোহর পড়বে কংগ্রেসের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকায়।রায়গঞ্জ ও মুর্শিদাবাদ আসন দুটি কোনওমতেই ছাড়া হবে না বলে অনড় ছিল সিপিএম। সেইমত দুটি আসনেই আগেভাগে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে দিয়েছে বাম নেতৃত্ব। তবে কংগ্রেসের জেতা  চারটি আসন ছেড়ে জোটের পথ খোলা রাখে সিপিএম। তবে রাজ্যে জোটের জট কাটতে শেষে শনিবার আসরে নামেন সীতারাম ইয়েচুরি ও রাহুল গান্ধী।

প্রসঙ্গত, রাহুল গান্ধীর হস্তক্ষেপে রায়গঞ্জ ও মুর্শিদাবাদ আসন দুটি বামেদের ছাড়তে রাজি হয়েছে প্রদেশ কংগ্রেস। কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক গৌরব গগৈ শনিবার জানিয়ে দেন, রায়গঞ্জ ও মুর্শিদাবাদ আসনে প্রার্থী দিচ্ছে না কংগ্রেস। কেউ-ই কারোর জেতা আসনে প্রার্থী দেবে না। আর এতেই দিন কয়েক ধরে চলতে থাকা টানাপোড়েনের পর জট কেটে জোটের পথ প্রশস্ত হয়।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।