জেলা প্রথম পাতা

কোন আলোচনা ছাড়াই ঝাড়গ্রামে তৃণমূল প্রার্থী করেছে বীরবাহা সোরেনকে, ক্ষোভে ফুঁসছে আদিবাসী সংগঠন

নিজস্ব প্রতিনিধি: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন ভারত জাকাত মাঝি পারগানা মহলের দাপুটে নেতা রবীন টুডুর স্ত্রী বিরবাহা সরেন (টুডু)।তারপর থেকে ক্ষোভ বাড়তে থাকে সংগঠনের সদস্য দের মধ্যে।অভিযোগ, আদিবাসীদের সামাজিক সংগঠন ভারত জাতাক মাঝি পারগানা মহলের তিন জেলার জেলা পারগানা রবীন বাবু যে তার স্ত্রীকে লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী করেছেন তা নিয়ে নিয়ে তিনি সংগঠনের সঙ্গে কোন আলোচনা করেননি।সংগঠনের নেতৃত্ব ফোন করলেও ফোন ধরেন নি।আর এই অভিযোগ তুলে ভারত জাকাত মাঝি পারগানা মহলের ঝাড়গ্রাম তল্লাট রবীন টুডুকে তার পারগানা পদ থেকে বহিস্কার করেছে।সোস্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিওতে সেই বিবৃতি প্রকাশ্যে এসেছে এবং সংবাদ মাধ্যমের কাছে রবীন বাবুকে যে তার পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে তাও জানানো হয়েছে।যদিও রবীন বাবু সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন “ কারো অধিকার নেই আমাকে আমার পদ থেকে সরানোর। পরিকল্পিতভাবে আমাকে অপমান করা হচ্ছে।” এদিন ভারত জাকাত মাঝি পারগানা মহলের ঝাড়গ্রাম তল্লাট সূর্য মুর্মু বলেন “ প্রথমমত এটি একটি সামাজিক সংগঠন। রাজনীতির সাথে কোনভাবে যুক্ত নয়।কিন্তু রবিন বাবু যে তার স্ত্রীকে তৃণমূলের প্রার্থী করচ্ছেন তা নিয়ে নিয়ে সংগঠনের কোন নেতৃত্বের সাথে আলোচনা করেন নি।তিনি নেতৃত্বের ফোন রিসিভ করছেন না। তাই তাকে তার পদ পারগানা থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। ”অন্যদিকে রবীন বাবু এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।তিনি বলেন “ বীরবাহা আমার স্ত্রী হতে পারে।কিন্তু দু জন সম্পুর্ন আলাদা মানুষ।উনি শিক্ষিত এক জন শিক্ষিকা।স্বাধীন মতামত আছে।তিনি নির্বাচনে প্রতিযোগিতা করবেন।সেটা সম্পূর্ণ তার মত। একজন শিক্ষিত মহিলার স্বাধীনভাবে কাজ করতে চাওয়ার সিদ্ধান্তে হস্তক্ষেপ করা মুর্খামি।আদিবাসী মেয়েদের এগিয়ে যাওয়ার পথে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা অগনতান্ত্রিক।

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।