দেশ

অদ্ভুত প্রভুপ্রেম! প্রভুর মৃত্যুতে মুখে দানা তুলছে না এই প্রাণীটি

নিজস্ব প্রতিবেদন— যদি আমাকে আপনাকে প্রশ্ন করা হয় পৃথিবীতে প্রভুভক্তি বেশি কোন প্রাণীর মধ্যে? সবার আগে আমার আপনার মুখে একজনের কথাই আসবে— তা হল কুকুর। কিন্তু সম্প্রতি তাকেও টেক্কা অন্য আর এক প্রাণী আর সেটা হল একটি উট। তার প্রিয় প্রভুর মৃত্যুর পর বেশ কয়েকদিন হল তার শোকে নিজের খাওয়া-দাওয়া ভুলে গেছে। অবসাদে ভুগছে ওই নিরীহ প্রাণীটি। সবাই খাওয়ানোর চেষ্টা করলেও সে কিছুইতে কোনও দানা মুখে তুলছে না। সে হয়ত এখন তার প্রভুর পিরে আসার অপেক্ষায় দিন গুণছে।

ঘটনাটি গুজরাট শহরের। সেখানকার পুলিশের সাব ইনস্পেক্টর ছিলেন শিবরাজ গাধভি৷ প্রাণের চেয়ে প্রিয় পোষ্য ছিল ওই উটটি। নিয়ম করে প্রতিদিন কাজে বের হওয়ার আগে কিছু খাওয়াতেন তিনি। পোষ্য উটটিও তাঁর প্রভু ছাড়া অন্য কারও হাতেই খাওয়াদাওয়া পছন্দ করত না৷ কিন্তু বেশ কয়েকদিন আগে সকালে উটকে খাবার দিয়ে বাড়ি থেকে বেরোবেন বলে ঠিক করেছিলেন ওই পুলিশ আধিকারিক৷ পোষ্যকে খেতে দেওয়ার পরই বুকে যন্ত্রণা শুরু হয় তাঁর৷ যন্ত্রণায় ছটফট করতে করতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন৷ তড়িঘড়ি অ্যাম্বুল্যান্সের বন্দোবস্ত করে স্থানীয় হাসপাতালে৷ কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি৷ চিকিৎসকরা জানান হার্ট অ্যাটাকেই মারা গিয়েছেন ওই পুলিশ আধিকারিক৷

জাকাউ থানার এক আধিকারিক জানান, ‘সীমান্ত এলাকায় পাহারা দেওয়ার কাজ ছিল ওই সাব ইনস্পেক্টরের৷ গুজরাটে কড়া সতর্কতা জারি থাকায় নজরদারি জোরদার করা হয়েছিল৷ তাই ইদানীং বেশ পরিশ্রম হচ্ছিল ওই পুলিশ আধিকারিকের৷ এর ফলে শরীর ভাল যাচ্ছিল না তাঁর৷’

এদিকে, পুলিশকর্মীর মৃত্যুর পর থেকে সাব ইনস্পেক্টরের পোষ্য উটটি আপাতত পুলিশি হেফাজতেই রয়েছে৷ প্রতিদিন নিয়ম করে খাবার, জল দেওয়া হচ্ছে তাকে৷ কিন্তু প্রভুকে খুঁজে না পেয়ে দিশাহারা অবলা প্রাণী৷ এক দানা খাবারও মুখে তুলছে না সে৷ প্রাণীটির প্রভুভক্তি অবাক করেছে পুলিশ আধিকারিকদের৷ উটটিকে আবারও স্বাভাবিক জীবনে ফেরানোর চেষ্টা করছেন তাঁরা৷ 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।